ঘুমানোর আগে 'পানি' পান যেসব 'ক্ষতির' কারণ - আজই জেনে রাখুন
ঘুমানোর আগে 'পানি' পান যেসব 'ক্ষতির' কারণ - আজই জেনে রাখুন

 #ঘুমানোর আগে ‘পানি’ পান যেসব ‘ক্ষতির’ কারণ – আজই জেনে রাখুন, পানি আমাদের দেহের বিভিন্ন রোগ প্রতিরোধ করে থাকে। তাইতো পরাযাপ্ত পরিমাণ পানি পানের নির্দেশ দিয়ে থাকেন #চিকিৎসকরা। তৃষ্ণা না পেলেও দিনে অন্তত ৭ থেকে ৮ গ্লাস পানি পান করা জরুরি।



তবে পর্যাপ্ত পানি পানের পরামর্শ দেয়া হলেও, একটি নির্দিষ্ট সময়ে পানি পান থেকে বিরত থাকতে বলা হয়েছে। আর সেটি হচ্ছে রাতে ঘুমাতে যাওয়ার আগে।
আর এই পানি পান না করার বিষয়টি যথেষ্ট গুরুত্বপূর্ণ।পৃথিবীর প্রতিটি জীবের বেঁচে থাকার জন্য পানির প্রয়োজন। মানবদেহের প্রায় #৬০_শতাংশ পানি থেকে তৈরি। এটি প্রতিটি কোষ, টিস্যু এবং অঙ্গে উপস্থিত থাকে। পানি আমাদের শরীরের তাপমাত্রা বজায় রাখতে সহায়তা করে, আমাদের জয়েন্টগুলিকে তৈলাক্ত করে, শরীরের কোষগুলোকে বাড়তে সহায়তা করে এবং টক্সিন বের করে দেয়।
আপনি যদি সারাদিন পর্যাপ্ত পানি পান না করেন, তবে দুর্বল বোধ করতে পারেন, মাথাব্যথা এবং অন্যান্য স্বাস্থ্যগত সমস্যা অনুভব করতে পারেন।
তবে আপনি যদি রাতে ঘুমানর আগে পানি পান করেন তবে এমন কিছু সমস্যায় ভুগতে পারেন যা আপনার স্বাস্থ্যের জন্য ক্ষতিকর। চলুন জেনে নেয়া যাক বিস্তারিত-



ঘুমানোর আগে ‘পানি’ পান যেসব ‘ক্ষতির’ কারণ – আজই জেনে রাখুন

ঘুমানোর আগে পানি পান করা কেন ভালো নয়?

1)  ঘুমোতে যাওয়ার ঠিক আগে পানি পান করা আপনার ঘুমচক্রে ব্যাঘাত ঘটাতে পারে। এটি রাতে প্রস্রাবের জন্য আপনার বাথরুমের তাড়া বাড়িয়ে দিতে পারে।
2)  সাধারণভাবে আমাদের প্রস্রাবের আউটপুট রাতে কমে যায়, যা আমাদের পাঁচ থেকে সাত ঘণ্টা শান্তভাবে ঘুমাতে দেয়। শোবার আগে আপনি যদি এক বা একাধিক গ্লাস পানি পান করেন, তবে রাতে আপনার একাধিকবার প্রস্রাব করার তাগিদ থাকতে পারে।
3)  ঘুম ব্যহত হলে পরের দিন মুড সুইং, শরীর জ্বালা, উচ্চ রক্তচাপ, খিটখিটে মেজাজের কারণ হতে পারে। একটি সমীক্ষা অনুসারে, ৪৫ বছরের বেশি বয়স্ক প্রাপ্ত বয়স্করা যারা রাতে ছয় ঘণ্টারও কম ঘুমাতেন তাদের ক্ষেত্রে স্ট্রোকের ঘটনা বেশি।

#রাতে_পানি_পানের_উপকারিতা

রাতের খাবার খাওয়ার পরে এক বা দুই গ্লাস পানি পান করলে তা নানাভাবে স্বাস্থ্যের উপকার করে। ভারি খাবার বা অধিক মশলাযুক্ত খাবার খাওয়ার পরে হালকা গরম পানির চেয়ে ভালো আর কিছু নেই। পানি প্রাকৃতিক ক্লিনার হিসেবে কাজ করে এবং শরীর থেকে বিষাক্ত পদার্থ দূর করতে সহায়তা করে। এটি হজম প্রক্রিয়া ত্বরান্বিত করে এবং কোষ্ঠকাঠিন্য দূরে রাখে।

#পানি_পানের_সঠিক_সময়

পর্যাপ্ত পানি পান করা স্বাস্থ্যের পক্ষে সর্বদা ভালো, তবে এটির পাশাপাশি ঝুঁকি রয়েছে বলে এটি অতিরিক্ত পানি পান করা থেকে বিরত থাকুন। প্রতিদিন কমপক্ষে ২ লিটার পানি পানের চেষ্টা করুন। তবে যতটা সম্ভব ঘুমাতে যাওয়ার ঠিক আগে পানি পান এড়িয়ে চলুন। একটি ভালো মানের ঘুমের জন্য ঘুমাতে যাওয়ার ঠিক আগে নয়, অন্তত ত্রিশ মিনিট আগে পানি পান করুন।
সূত্র :

LEAVE A REPLY

Please enter your comment!
Please enter your name here